বিগ ব্যাশে এনওসি দিচ্ছে না পিসিবি; বিদ্রোহের শংকা

অস্ট্রেলিয়ার ঘরোয়া বিগ ব্যাশ টি-টোয়েন্টি লিগে (বিবিএল) অংশ নিতে নিজ দেশের খেলোয়াড়দের অনাপত্তি পত্রের আবেদন প্রত্যাখ্যান করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। এ নিয়ে আবারও ক্রিকেটারদের মধ্যে বিদ্রোহের পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে দেশটিতে।

এর আগে এমন ক্রিকেটারদের বিদ্রোহ দানা বাঁধার আগেই আলোচনার মাধ্যমে থামিয়ে দেওয়া হয়েছিল। এবার নতুন করে বোর্ড বনাম ক্রিকেটারদের মধ্যে কিছু ঘটার আশংকা করছে দেশটির শীর্ষ কিছু গণমাধ্যম।

বিগ ব্যাশে অংশ নিতে অল-রাউন্ডার ফাহিম আশরাফ ও উসমান শিনওয়ারির অনাপত্তি পত্র দেয়নি পিসিবি। আসন্ন মৌসুমে অস্ট্রেলিয়ার এই শীর্ষ লিগের একটি দলের স''ঙ্গে সম্প্রতি আশরাফ এবং ফাস্ট বোলার শিনওয়ারি চুক্তি করেছেন। চুক্তি অনুযায়ী মেলবোর্ন রেনেগেডসের হয়ে আশরাফ ও শিনওয়ারি যথাক্রমে টুর্নামেন্টের প্রথম আট' ও পাঁচ ম্যাচ খেলবেন। গত মে মাসে বিশ্বকাপ দল থেকে বাদ পড়ার পর এখন পর্যন্ত পাকিস্তানের হয়ে কোনো ম্যাচ খেলার সুযোগ পাননি আশরাফ।

পিসিবির একটি সুত্র জানায়, আশরাফকে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলতে মনোযোগ দিতে বলা হয়েছে। অন্য দিকে শিনওয়ারিকে নিজ মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে চলমান সিরিজে দলে ডাকা হয়েছে। দুই খেলোয়াড়কেই আগামী স'প্ত াহে অস্ট্রেলিয়ার উদ্দেশ্যে রওনা হওয়ার কথা ছিল। পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে আশরাফ ও শিনওয়ারির বদলি হিসেবে ইংলিশ পেসার রিচার্ড গ্লিসন ও হ্যারি গার্নিকে দলে নেয়ার সি'দ্ধান্ত নিয়েছে রেনেগেডস।

বিদেশি লিগগু'লোতে অংশ নিতে খেলোয়াড়দর অনাপত্তি পত্র না দেওয়া নীতির কারণে সম্প্রতি বড় সমালোচনার মুখে পড়েছে পিসিবি। এ বি'ষয়ে নুতন নীতি করতে যাচ্ছে তারা, যাতে এক মৌসুমে মাত্র দুইটি লিগে খেলার অনুমতি দেয়া হবে।

কিন্তু এই নতুন নীতি নিয়ে আপ'ত্তি জানিয়েছেন ক্রিকেটাররা। এমনিতেই পাকিস্তানের কেউ আইপিএলে খেলতে পারেন না। তার ওপর এমন নীতি হলে স্বাভাবিকভাবেই ক্রিকেটারদের আয়-রোজগারে টান পড়বে। শেষ পর্যন্ত এর কী সমাধান হয় , তা দেখার জন্য অ’পেক্ষা করতেই হচ্ছে।