সাংবাদিক পরিচয়ে মোটরসাইকেলে তরুণীর মা'দক ব্যবসা

যশোরে মা’দক ব্যবসায়ী একটি চক্রের পাঁচ সদস্যকে আ’ট’ক করেছে পু’লিশ। এ সময় তাদের কাছ থেকে দুটি ওয়াকিট’কি ও একটি মোটরসাইকেল উ’'দ্ধার হয়। পু’লিশ ও সাংবাদিক পরিচয়ে এ চক্রের সদস্যরা দীর্ঘদিন ধরে নানা অ’প’রাধে জ’ড়িত বলে তথ্য মিলেছে।

আ’ট’করা হলেন- চৌগাছা উপজে’লার নারাণপুর গ্রামের মিঠুর 'স্ত্রী’ রুমানা ওরফে লিপি, যশোর শহরের চাঁচড়া রায়পাড়া বিল্লা ম’সজিদ রোডের পিয়া, শংকরপুর মুরগির ফার্মগেট এলাকার সোহেল, রেলরোডের রেলবাজার এলাকার বিসমিল্লাহ সেলুনের পেছনের বাসিন্দা বাবু ও আশ্রম রোডের সাহেব বাবুর বাড়ির সামনের বাসিন্দা তুহিন।

এদের মধ্যে রুমানা ওরফে লিপি নিজেকে সা'প্ত াহিক স্মৃ'’তি পত্রিকার সাংবাদিক হিসেবে দাবি করেন। তার বসবাস শহরের রেলগেট ও ষষ্টিতলা এলাকায়।

কোতয়ালি থানা পু’লিশের পরিদর্শক (ত’দন্ত) সমীর কুমা’র সরকার জানান, বুধবার বিকেলে তারা যশোর জিলা স্কুলের সামনে থেকে সন্দে'হভাজন হিসেবে দুজনকে আ’ট’ক করেন। এদের একজন হলেন সোহেল। তার হাতে একটি ওয়াকিট’কি পাওয়া যায়। পরে শরীর তল্লা’শি চালিয়ে আরো ওয়াকিট’কি উ’'দ্ধার হয়। আ’ট’কের পর সোহেল দাবি করেন, তিনি যশোর রেলওয়েতে চাকরি করেন এবং ওয়াকিট’কি তাদের অফিসের।

পু’লিশ আরো জানায়, তাকে রেলস্টেশনে নিয়ে গেলে স্টেশন মাস্টার তাদের (পু’লিশ) জানান, সোহেল এক সময় রেলওয়েতে অস্থায়ী হিসেবে কাজ করত। এখন কাজ করেন না। আর ওয়াকিট’কি দুটি রেলওয়ের নয়।

পু’লিশের ওই কর্মক’র্তা জানান, পরে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের একপর্যায়ে সোহেল স্বীকার করেন, ওয়াকিট’কি দুটি রুমানা ওরফে লিপির কাছ থেকে নিয়েছেন। তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী অ’ভিযান চালিয়ে রুমানা ওরফে লিপি ও পিয়াসহ তিনজনকে আ’ট’ক করা হয়। আ’ট’কের পর রুমানা নিজেকে সা'প্ত াহিক স্মৃ'’তি নামে একটি পত্রিকার প্রতিবেদক হিসেবে পরিচয় দেন।

ওয়াকিট’কি প্রস''ঙ্গে রুমানা পু’লিশকে জানান, তিনি একটি কোম্পানি থেকে ওয়াকিট’কি সংগ্রহ করেছেন। পু’লিশ জানায়, বড় বড় প্রতিষ্ঠান তাদের নিরাপত্তা প্রহরীদের কাছে এ ধরনের ওয়াটিকটি দিয়ে থাকে।

পু’লিশের এক কর্মক’র্তা জানান, রুমানা ওরফে লিপি একজন ক'লগার্ল। তিনি এর আগে দুবার ধ’রাও পড়েন পু’লিশের হাতে। তা ছাড়া তিনি বড় ধরনের মা’দক ব্যবসায় জ’ড়িত।

কোতয়ালি থানা পু’লিশের এসআই আমিরুজ্জামান জানান, রুমানা একটি এফজেডএস মোটরসাইকেল চালিয়ে বেড়ান। এ মোটরসাইকেল মূলত তার স্বামীর। স্বামী-'স্ত্রী’ দুজনেই ইয়াবা কারবারে জ’ড়িত। সাংবাদিক পরিচয়ে সুবিধা নিয়ে রুমানা বিভিন্ন স্থানে ইয়াবার বড় বড় চালান সরবরাহ করে থাকে।

মা’দকের ব্যবসা ছাড়াও বিভিন্ন লোকজনকে ফাঁ'দে ফেলে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেয় রুমানাসহ প্রতারকরা।

তিনি বলেন, রুমানা সা'প্ত াহিক স্মৃ'’তি পত্রিকার সাংবাদিক পরিচয় দেওয়ায় ওই পত্রিকার সম্পাদককেও ডেকে তারা এ বি'ষয়ে খোঁজ নেবেন।